টেস্ট সিরিজ চ্যালেঞ্জিং হবে : তামিম ইকবাল

তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইটওয়াশ করলেও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ চ্যালেঞ্জিং হবে বলে মনে করেন বাংলাদেশের অধিনায়ক তামিম ইকবাল। সিরিজের তিন ওয়ানডে ম্যাচ যথাক্রমে- ৬ উইকেট, ৭ উইকেট ও ১২০ রানে জিতেছে বাংলাদেশ। তামিমের মতে, ওয়ানডে সিরিজের চেয়ে টেস্টে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বোলিং অ্যাটাক অনেক বেশি ভালো। তাই টেস্ট সিরিজে প্রতিপক্ষের বোলিং বড় হুমকির কারণ হতে পারে।

করোনাভাইরাস আতঙ্কে বাংলাদেশ সফরে আসেননি ওয়েস্ট ইন্ডিজের উপরের সারির ১২জন ক্রিকেটার। ২০১৮ সালে নিজেদের মাটিতে গতি দিয়ে বাংলাদেশকে বেকাদায় ফেলেছিলেন দুই পেসার শ্যানন গাব্রিয়েল ও কেমার রোচ। তারা এবারের সিরিজেও দলে আছেন। তামিম বলেন, ‘ওয়ানডে সিরিজে আমরা যে বোলিং আক্রমনের বিপক্ষে খেলেছি, তার চেয়ে টেস্টে তাদের বোলিং একেবারেই ভিন্ন। সেখানে ২-৩ জন দারুণ বোলার আছে। তাই অবশ্যই টেস্ট সিরিজ চ্যালেঞ্জিং হবে।’

২০১৮ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে দুই ম্যাচের সিরিজ ২-০ ব্যবধানে হেরেছিল বাংলাদেশ। তবে ওই বছরই অবশ্য ঘরের মাঠে সিরিজ হারের প্রতিশোধও নেওয়া হয়েছে। দুই ম্যাচের সিরিজ ২-০ ব্যবধানে জিতেছিল টাইগাররা। তারপরও পেস ও আক্রমণাত্মক বোলিংয়ে বাংলাদেশকে চাপে রেখেছিলেন গ্যাব্রিয়েল ও রোচ। টেস্ট সিরিজে এই দুই অভিজ্ঞ ক্রিকেটারকে পাচ্ছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তবে তামিম জানান, যে দলই হোক না কেন, টেস্টে যেকোন চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত বাংলাদেশ।

টাইগারদের ওয়ানডে অধিনায়ক বলেন, ‘ওয়ানডে সিরিজের পাশাপাশি আমরা টেস্ট সিরিজের জন্যও নিজেদের প্রস্তুত করেছি। ওয়ানডে সিরিজ চলাকালীন আমাদের টেস্ট দল অনুশীলন করেছে। এখনো আমাদের হাতে ছয় বা সাত দিন সময় আছে। এই সময় আমাদের প্রস্তুত এবং টেস্ট মেজাজে যাওয়ার জন্য যথেষ্ট।’

About Online Desk

Check Also

২৫ জুন খুলে দেওয়া হবে পদ্মা সেতু

আগামী ২৫ জুন সকাল ১০টায় বহুল কাঙ্ক্ষিত পদ্মা সেতু উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার …

Leave a Reply

Your email address will not be published.