বিসিএস সদস্যরা কোটি টাকা ঋণ পাবেন ব্র্যাক ব্যাংক থেকে ।

বিসিএসের শাখা অফিস অবিস্থত ৭টি জেলাতেই থাকবে ডেডিকেটেড এসএমই হেল্পলাইন। মিলবে ফ্রি ডেবিট কার্ড ও ইন্টারনেট ব্যাংকিং সল্যুশন। চালু হবে কো-ব্র্যান্ডেড ডেবিট কার্ড।’মেড ইন বাংলাদেশ’ স্লোগানে ব্র্যাক ব্যাংক উদ্যোক্তাদেরও সহজ শর্তে অর্থায়ন করবেন বলেই আমি আশা করি। বিসিএস সদস্যদেরও ব্যাংকের এই সহযোগিতার কথা মাথায় রেখে ঠিক সময়ে লোন পরিশোধ করে ব্যাংকিং খাতকেও উৎসাহিত করা উচিত।’

বিসিএস সদস্য এবং উদ্যোক্তাদের যাবতীয় ডিজিটাল ব্যাংকিং সেবা প্রদান এবং জামানতবিহীন ১ কোটি টাকা পর্যন্ত লোন দেয়ার লক্ষ্যে বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি (বিসিএস) এবং ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেডের মধ্যে একটি সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে । ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে তথ্যপ্রযুক্তি খাতের উন্নয়ন এবং এই খাতের সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীদের ফিন্যান্সিয়াল সুবিধা প্রদান করা গেলে তা উভয় পক্ষের জন্য কল্যাণকর।’

শনিবার (২৪ অক্টোবর) তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বিসিএস সদস্যদের স্মল, মিডিয়াম এন্টারপ্রাইজেস (এসএমই) সুবিধা প্রদানের জন্য ওয়েবিনারে বিসিএস সভাপতি মো. শাহিদ-উল-মুনীর এবং ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং প্রধান কার্যনির্বাহী সেলিম আর.এফ. হোসাইনের উপস্থিতিতে আর্থিক সঙ্কট মোকাবেলা এবং লোন সুবিধাসহ ‘উদ্যম’ ফিনেন্সিয়াল সল্যিউশনের যাত্রা শুরু হয়। ‘বিসিএস-ব্র্যাক ব্যাংক পার্টনারশিপ’ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিসিএস সভাপতি মো. শাহিদ-উল-মুনীর।

তিনি বলেন, করোনা পরবর্তী সংকটময় সময়ে তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবসায়ীদের পাশে ব্র্যাক ব্যাংকের এগিয়ে আসার উদ্যোগকে আমরা স্বাগত জানাই। কাজী ইমদাদুল হকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি প্রথম থেকেই কাজ করে আসছে। ব্র্যাক ব্যাংক বিসিএস সদস্যদের অর্থায়নে যে সুবিধা প্রদান করছেন তা প্রশংসনীয়। দুটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে এই চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে বলে আমি আরো বেশি আনন্দিত। তরুণদের আইডল প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের দূরদর্শী নির্দেশনায় তথ্যপ্রযুক্তি খাত দ্রুত গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। সরকার আমদানিকারক হওয়ার চেয়ে উৎপাদনকারী হওয়ার প্রতি গুরুত্ব আরোপ করেছে। ‘

‘বিসিএস-ব্র্যাক ব্যাংক পার্টনারশিপ’ সম্পর্কে বিস্তারিত উল্লেখ করে ব্র্যাক ব্যাংকের হেড অব এসএমই ব্যাংকিং সায়েদ আব্দুল মোমেন বলেন, ‘ব্র্যাক ব্যাংক বরাবরের মতো ক্ষুদ্র এবং মাঝারি উদ্যোক্তাদের গুরুত্ব দিয়ে থাকে। এর সঙ্গে এখন আমরা আইসিটি উদ্যোক্তাদেরও যুক্ত করেছি।

বিসিএস এর সঙ্গে এই সমঝোতা চুক্তির ফলে ব্র্যাক ব্যাংকের ডিজিটাল ব্যাংকিং সেবার পাশাপাশি জামানতবিহীন লোন, এক্সপোর্ট রিটেনশন কোটা (ইআরকিউ), স্ট্যান্ডবাই লেটার অব ক্রেডিট (এসবিএলসি)সহ বেশ কিছু আকর্ষণীয় সুবিধা বিসিএস সদস্যরা উপভোগ করতে পারবেন। ব্যাংকিং এবং ঋণ সুবিধা দিতে ব্র্যাক ব্যাংকের এলিফেন্ট রোড শাখাসহ প্রধান প্রধান শাখাগুলোতে মিলবে সান্ধ্যাকালীন ব্যাংকিং সেবা।

About Online Desk

Check Also

২৫ জুন খুলে দেওয়া হবে পদ্মা সেতু

আগামী ২৫ জুন সকাল ১০টায় বহুল কাঙ্ক্ষিত পদ্মা সেতু উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার …

Leave a Reply

Your email address will not be published.